6 December 2022

জ্বালানি তেলের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যাওয়া নিয়ে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ।শনিবার দুপুরে রাজধানীর বসুন্ধরা গেট এলাকায় রাজিব নামের একজন পাঠাও রাইডার বলেন, জ্বালানি তেলের দামের কারণে এখন সবকিছুরই দাম বেড়ে যাবে। একটা গণতান্ত্রিক দেশে এভাবে হুট করে বেড়ে যাবে এটা মেনে নেয়া যায় না।

তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আপনি আমার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইছেন। কি প্রতিক্রিয়া দেব বলেন? খুশিতে তো আত্মহত্যা করতে ইচ্ছে করছে।তিনি বলেন, সবকিছুর দাম দিনে দিনে বাড়বে এটা স্বাভাবিক। কিন্তু রাতারাতি জ্বালানি তেলের দাম এভাবে বেড়ে যাওয়ায় তেল ব্যবসায়ীরা তো এক রাতেই কোটিপতি হয়ে গেল।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক বাইকার বলেন, একটা গণতান্ত্রিক দেশে এভাবে সবকিছু হয়ে যাচ্ছে। আমরা মেনে নিচ্ছি, মেনে নিতে বাধ্য হচ্ছি। এভাবে দেশ চলতে পারে না।উল্লেখ্য, শুক্রবার রাত ১০টায় হঠাৎ করেই জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দেয় সরকার। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির বিষয়ে জানানো হয়।

নতুন দাম অনুযায়ী- প্রতি লিটার ডিজেল ৮০ টাকা থেকে ৩৪ টাকা বেড়ে ১১৪ টাকা, কেরোসিন ৩৪ টাকা বেড়ে ১১৪ টাকা, অকটেন ৪৬ টাকা বেড়ে ১৩৫ টাকা এবং পেট্রল ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৩০ টাকা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *